তবুও নিজেকে সেরা মানছেন না সাকিব

দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮৯ রান। বল হাতে ১০টি উইকেট। তার এমন পারফর্মে ভর করে বাংলাদেশের অবিস্মরণীয় জয়। তবুও নিজেকে সেরা মানছেন না সাকিব আল হাসান। আইসিসির র‌্যাঙ্কিং অবশ্য তাকে সেরা বানিয়ে রেখেছে আগে থেকেই।

ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে সাকিব এলেন সব সময়ের মতো নিরুত্তাপ ভঙিমায়। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এমন একটা জয়ের পর তার কাছ থেকে আরো একটু উচ্ছ্বাস নিশ্চয় আশা করছিলেন দর্শকরা। কিন্তু সাকিবের তাতে থোড়াই কেয়ার!

সংবাদ সম্মেলনে যখন জিজ্ঞেস করা হলো যে, অস্ট্রেলিয়ার মতো শীর্ষ সারির দলকে হারানোর ম্যাচে নায়ক হওয়ার পর তার কি নিজেকে সেরা অলরাউন্ডার মনে হচ্ছে? উত্তরে সাকিব বলেন, ‘সে রকম কিছু মনে হয় না। আমার কাজই তো দুই দিক থেকে দলের জন্য অবদান রেখে যাওয়া।’

এই ম্যাচ দিয়েই টেস্টখেলুড়ে অন্য সব দলের (আফগানিস্তান ও আয়ারল্যান্ড ছাড়া) বিপক্ষে টেস্টের অন্তত এক ইনিংসে পাঁচ বা এর চেয়ে বেশি উইকেট নেয়ার কীর্তি গড়েছেন সাকিব। ক্যারিয়ারের ১০ বছর কাটিয়ে দেয়ার পর প্রথমবার অস্ট্রেলিয়াকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েই চক্রপূরণ করেছেন তিনি। ব্যাট হাতেও করেছেন দারুণ পারফর্ম। প্রথম ইনিংসে তার ও তামিমের জুটির কারণেই লিড পায় বাংলাদেশ।

সাকিবের কাছে তবু এ ব্যাপারগুলো কেবলই দায়িত্ব পালন। তিনি বলেন, ‘দলের জন্য অবদান রাখতে পারলেই বেশি ভালো লাগে এবং আমি সব সময় এটাই করতে চাই। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আমরা কখনো খেলিনি। এ কারণে এই ম্যাচটি নিয়ে আমাদের খুব আগ্রহ ছিলো। সব মিলিয়ে এই ম্যাচের জয় আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’